শিরোনাম :
বাংলাদেশে নবনিযুক্ত দেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে : প্রধানমন্ত্রী সরকার জরুরি ভিত্তিতে সাড়ে ৫ লাখ টন চাল আমদানির সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন বিএডিসির নতুন চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকারের যোগদান দেশের প্রায় ১৭ লক্ষ গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতি ২০১৫ বাস্তবায়ন জরুরি’ সেবামূলক কাজে সংসদ সদস্যদের সম্পৃক্ততা বাড়ানোর আহ্বান জাতির পিতার সমাধিসৌধে শ্রদ্ধা জানালেন নবনিযুক্ত সচিব সায়েদুল ইসলাম জাতীয় প্রেস ক্লাবে মুশতাকের মৃত্যুর কারণে আইন বাতিল করতে হবে কেন? : তথ্যমন্ত্রী চাটখিলে ২রা মার্চ স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন দিবস পালিত সাতছড়ির জাতীয় উদ্যানে বিজিবির অভিযান, ১৬ রকেট শেল উদ্ধার
জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
মোটাতাজা করা গরু গরুর হাটেই যেভাবে চিনবেন কৃত্রিম উপায়ে

মোটাতাজা করা গরু গরুর হাটেই যেভাবে চিনবেন কৃত্রিম উপায়ে

ঈদুল আজহা মানেই হাটে গিয়ে গরু ছাগল কেনার পাল্লা। আর তাইতো ঈদের সপ্তাহখানেক আগ থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে জমে ওঠে গবাদিপশুর হাট। ঈদুল আজহার বাকি আর মাত্র ক’দিন। এসময় সবাই হাটে গিয়ে গরু কেনার সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন নিশ্চয়ই!
তবে কোরবানির পশু কেনার সময় দুশ্চিন্তাগ্রস্থ থাকেন অনেকেই! সুস্থ পশুটি কিনতে পারবেন তো এই ভেবে। কারণ কোরবানির ঈদ আসলেই অসাধু ব্যবসায়ীরা গবাদিপশু কৃত্রিম উপায়ে মোটাতাজা করতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর এ ধরনের চিন্তার কারণে ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় সাধারণ মানুষের। বেশি দামে পশু বিক্রি করতে নানা ধরনের পন্থা অবলম্বন করেন তারা। হাটে দেখতে আকর্ষণীয় এসব গরুর মূল্য হাঁকা হয় লাখ লাখ।

জানা গেছে, বিভিন্ন ধরনের ওষুধ, ইনজেকশন ও রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করে এসব পশুকে মোটাতাজা করে থাকেন তারা, যা পুরোপুরি স্বাস্থ্যের জন ভয়ানক ক্ষতিকর। বিশেষজ্ঞদের মতে, কৃত্রিম উপায়ে মোটাতাজাকরণ গরুর মাংস খেলে মানুষের শরীরে পানি জমে যাওয়া, রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া, মূত্রনালি ও যকৃতের বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই এসব পশু কেনা থেকে অবশ্যই বিরত থাকতে হবে।
তাই স্বাস্থ্যবতী গাই বা স্বাস্থ্যবান ষাঁড় দেখলেই তা কোনোরকম পরীক্ষা না করে কেনা উচিত নয়। তবে বেশ কয়েকটি লক্ষণ রয়েছে এসব গরুর। হাটে দাঁড়িয়ে চেনা যাবে কোন পশুটিকে কৃত্রিম উপায়ে ইনজেকশন ও রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করে মোটাতাজা করা হয়েছে। তবে জেনে নিন যেভাবে চিনবেন ইনজেকশন দেয়া কোরবানির পশু- আঙুলের চাপ কৃত্রিম উপায়ে মোটাতাজাকরণ গরুর গায়ে আঙুল দিয়ে চাপ দিলে ওই স্থানের মাংস স্বাভাবিক হতে অনেক সময় লাগে। কিন্তু স্বাভাবিকভাবে মোটা গবাদিপশুর ক্ষেত্রে দ্রুতই মাংস স্বাভাবিক হয়। কৃত্রিম উপায়ে মোটাতাজাকরণ গরু দ্রুত শ্বাস-প্রশ্বাস গ্রহণ করে। একটু হাঁটলেই হাঁপায়। খুবই ক্লান্ত দেখায়। ইনজেকশন দেয়া গরুর রানের মাংস নরম হয়। স্বাভাবিকভাবে যেসব গরু মোটা হয় সেগুলোর রানের মাংস শক্ত হয়। যেসব গরুর মুখে কম লালা বা ফেনা থাকে সেই গরু কেনার চেষ্টা করুন। এগুলো কৃত্রিম উপায়ে মোটা করা পশু নয়।

খুব শান্ত স্টেরয়েড ট্যাবলেট খাওয়ানো বা ইনজেকশন দেয়া গরু হবে খুব শান্ত। ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারবে না। পশুর ঊরুতে অনেক মাংস মনে হবে। শরীরে পানি জমে অতিরিক্ত হরমোনের কারণে পুরো শরীরে পানি জমে মোটা দেখাবে। আঙুল দিয়ে গরুর শরীরে চাপ দিলে সেখানে দেবে গিয়ে গর্ত হয়ে থাকবে। খাবার

গরুর মুখের সামনে খাবার ধরলে যদি নিজ থেকে জিহ্বা দিয়ে খাবার টেনে নিয়ে খেতে থাকে তবে বোঝা যাবে গরুটি সুস্থ। যদি অসুস্থ হয়, তবে সে খাবার খেতে চায় না।

নাকের ওপরটা ভেজা

সুস্থ গরুর নাকের ওপরটা ভেজা ভেজা থাকে। সুস্থ গরুর পিঠের কুঁজ মোটা ও টান টান হয়।

পা ও মুখ ফোলা

বিশেষ করে গরুর পা ও মুখ ফোলা, শরীর থলথল করবে, অধিকাংশ সময় গরু ঝিমাবে, সহজে নড়াচড়া করবে না। এসব গরু অসুস্থতার কারণে সব সময় নিরব থাকে। ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারে না। খাবারও খেতে চায় না।

হাটে যাওয়ার পর উশকোখুশকো, চামড়ার ওপর দিয়ে হাড় বেরিয়ে পড়া পশু কিনতে চেষ্টা করুন। এগুলো কোনোরকম কৃত্রিম উপায় ছাড়াই বাজারে সরবরাহ করা হয়। চকচক করা গরু বা ছাগলকে দেয়া হয় ইনজেকশন।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com