জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
এক বছর টার্গেট করে কাজ করুন’ডেঙ্গু প্রতিরোধে নাসিম

এক বছর টার্গেট করে কাজ করুন’ডেঙ্গু প্রতিরোধে নাসিম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :
ডেঙ্গু প্রতিরোধে এক বছর টার্গেট করে কাজ করার পরামর্শ দিলেন দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

শনিবার বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি করপোরেশন ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের প্রতি এ আহ্বান জানান তিনি।

নাসিম বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে এক বছর টার্গেট করে কাজ করুন। সময়ের কাজ সময়ে করুন। মানুষ ডেঙ্গু নিয়ে ভয়ে আছে, আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। আমি সিটি করপোরেশনকে বলবো, নিয়মিত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম পরিচালনা করতে। স্থানীয় সরকারকে বলবো এখন থেকে সারাদেশের পৌরসভাকে কাজে লাগান।

পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গু মোকাবিলার বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, কলকাতা যদি ডেঙ্গুমুক্ত করতে পারে আমরা কেন পারবো না। আজ থেকে মনে করুন আমরা ডেঙ্গুবিরোধী যুদ্ধে নেমেছি। আগামী বছর যাতে ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখা না দেয়। আমরা আপনাদের পাশে আছি।

তিনি আরও বলেন, মানুষ কষ্ঠে আছে, নির্বাচনের সময় কিন্তু মানুষ এটা মনে রাখবে। শুধু কথা বলে কাজ হবে না, ডেঙ্গুমুক্ত করতে কাজ করতে হবে।

বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছার স্মৃতিচারণ করে নাসিম বলেন, সবচেয়ে কঠিন সময় যখন ছিলো তখন বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাজনৈতিকভাবে সহযোগিতা করেছেন, তার পাশে থেকেছেন। তিনি যদি সাহস না যোগাতেন তাহলে স্বাধীনতা সংগ্রাম হতো না, শেখ মুজিবুর রহমান বঙ্গবন্ধু হতে পারতেন না, এই দেশ স্বাধীন হতো না।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার পর এই জিয়া, এরশাদ, খালেদা জিয়ার দল স্বাধীনতা বিরোধীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে, বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পুরস্কৃত করেছে। খুনিদের, স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছে জিয়া।

আলোচনা সভায় জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেন, বঙ্গমাতা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ বা কোনো সংগঠনের সদস্য ছিলেন না। বঙ্গবন্ধু যখন ৬ দফা দিয়েছিলেন তখন বঙ্গবন্ধুর পাশে বঙ্গমাতা রাজনৈতিকভাবে দাঁড়িয়েছিলেন।

স্বাধীনতা সংগ্রামে তিনি বঙ্গবন্ধুর পাশে শক্ত অবস্থান নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন বলে জানিয়ে তিনি বলেন, এখন আমরা যখন এগিয়ে যাচ্ছি তখন অনেক চ্যালেঞ্জ দেখছি। এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবিলা করতে বঙ্গমাতার মতো আত্মসংযমী হতে হবে। তাহলেই বঙ্গমাতার প্রতি যথাযথ শ্রদ্ধা দেখানো হবে।

বঙ্গবন্ধু একাডেমির সভাপতি নাজমুল হকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, জাসদের নেতা মীর হুসাইন আক্তার প্রমুখ।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com