জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
১৯২তম ঈদ জামাতের জন্য প্রস্তুত শোলাকিয়া

১৯২তম ঈদ জামাতের জন্য প্রস্তুত শোলাকিয়া

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি
ছবি: সংগৃহীত
ঈদ জামায়াতের জন্য প্রস্তুত কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দান। এবার হতে যাচ্ছে ১৯২তম ঈদুল আজহার ঈদ জামাত। জামাত শুরু হবে সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায়।
মাঠের নিয়মিত ইমাম মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ হজ পালন করতে সৌদি আরবে চলে যাওয়ায় এবারের জামায়াতে ইমামতি করবেন শহরের মারকায মসজিদের ইমাম হিফজুর রহমান খান। বেশি মুসল্লির সঙ্গে জামাত আদায় করলে দোয়া কবুল হয়-এমন কারণে দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসেন অনেক লাখ লাখ মুসল্লি।

২০১৬ সালে ঈদের দিন জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে এবার তিন স্তরের নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। এছাড়া পুরো মাঠ ও আশপাশ এলাকার আকাশ থেকে ড্রোনের মাধ্যমে মুসল্লিসহ সবার গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করা হবে। পর্যাপ্ত পুলিশ, র‌্যাব ছাড়াও মাঠে থাকবে বিজিবির বিপুল পরিমাণ সদস্য। এ ছাড়া সাদা পোশাকে ব্যাপক সংখ্যক পুলিশ সদস্যও থাকবে। মাঠে আর্চওয়ে, ওয়াচ টাওয়ার, সিসি ক্যামেরারও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে ভোর থেকে ভৈরব ও ময়মনসিংহ থেকে বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে।

কিশোরগঞ্জের নরসুন্দা নদীর তীরে গড়ে ওঠা দেশের সর্ববৃহৎ ও প্রাচীনতম ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে দেশ-বিদেশের লাখ লাখ মুসল্লি ঈদ জামাতে অংশ নিয়ে থাকেন। ২০১৬ সালের ঈদের দিনে জঙ্গি হামলার পর থেকেই এ মাঠে কঠোর নিরাপত্তায় মুসল্লিরা ঈদ জামাতে অংশ নিচ্ছেন। এবারো ঈদ জামাতের আয়োজনে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিরাপত্তাসহ সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

ডিসি মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী ও এসপি মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ, কিশোরগঞ্জ পৌর মেয়র মাহমুদ পারভেজসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা বেশ কয়েকবার মাঠ পরিদর্শন করেছেন। শান্তিপূর্ণভাবে ঈদ জামাত আয়োজনে প্রশাসনের পাশাপাশি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও একযোগে কাজ করছেন।

কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহমুদ পারভেজ জানান, মুসল্লিদের জন্য পর্যাপ্ত সুপেয় পানি, স্যানিটেশনসহ সব ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এছাড়া মাঠে প্রবেশের সব সড়কগুলো নিমার্ণ করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ এসপি মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ (বিপিএম) জানান, ঈদ জামাতকে কেন্দ্র করে সব নিরাপত্তা ব্যবস্থার প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। নির্বিঘ্নে করতে মাঠে চারস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। প্রত্যেক মুসল্লিকে তল্লাশির মাধ্যমে মাঠে প্রবেশ করানো হবে।

ঈদগাহ মাঠ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও ডিসি মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী জানান, সারাদেশে মশক নিধনের অংশ হিসেবে শোলাকিয়া মাঠ ও আশপাশ এলাকায় মশক নিধনের ওষুধ ছিটানো হয়েছে। নিরাপত্তাসহ সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সবার একান্ত প্রচেষ্টায় ঐতিহাসিক শোলাকিয়ায় শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদুল আজহার জামাত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com