জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
স্মিথের পাশে দাঁড়ালেন যুক্তরাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী

স্মিথের পাশে দাঁড়ালেন যুক্তরাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রী

ক্রীড়া ডেস্ক,:
এবার স্টিভেন স্মিথের পাশে দঁড়ালেন বৃটিশ ক্রীড়ামন্ত্রী। বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির দায়ে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে খেলায় ফেরা অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্মিথের প্রতি চলমান অ্যাশেজ সিরিজে দুয়োধ্বনিকে ‘অসম্মানজনক’ উল্লেখ করে তা বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটেনের ক্রীড়া মন্ত্রী নিগেল এডামস। তার মতে, বল বিকৃতির জন্য তো গেল বছর শাস্তি পেয়েছেন স্মিথ। তাই তাকে আর অসম্মান করা সমীচীন নয়।

গেল বছর কেপটাউনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্টে বল বিকৃতি করেন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যান ক্যামেরুন ব্যানক্রফট। তার সাথে এমন কু-কর্মের সাথে জড়িত ছিলেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। পরবর্তীতে বল-বিকৃতির কান্ড প্রমাণ হলে, নিজেদের কু-কর্ম স্বীকার করে নেন ব্যানক্রফট-স্মিথ ও ওয়ার্নার। ফলে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ব্যানক্রফটকে নয় মাস, স্মিথ-ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে।

বার্মিংহাম টেস্টের দুই ইনিংসে ১৪৪ ও ১৪২ রানের দু’টি নান্দনিক ও দর্শনীয় ইনিংসের পর লর্ডসে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৯২ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন স্মিথ। তবে ব্যক্তিগত ৮০ রানে ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা জফরা আর্চারের দ্রুত গতির এক বাউন্সারে ঘাড়ের পেছনে আঘাত পান। সাথে সাথে মাঠ ছাড়েন তিনি। পরে মাঠে ফিরে আরও তিনটি বাউন্ডারিতে নিজের নামের পাশে আরও ৯২ রান রেখে আউট হন তিনি। ঘাড়ের ইনজুরিটি মারাত্মক আকাড় ধারন করায় দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটই করেননি তিনি। তার পরিবর্তে প্রথমবারের মত টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের ‘কংকাসান সাব’ খেলোয়াড় হিসেবে ব্যাট হাতে নামেন অস্ট্রেলিয়ার মার্নাস লাবুশেন। ৫৯ রানের ইনিংস খেলে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ম্যাচ ড্র’তে বড় ভূমিকা রাখেন লাবুশানেকে।

তবে স্মিথের ঘাড়ের ঐ আঘাত অস্ট্রেলিয়ার জন্য এখন মহাবিপদ। সিরিজের তৃতীয় টেস্ট থেকে ইতোমধ্যে ছিটকে গেছেন স্মিথ। তাই ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে স্মিথকে ছাড়া হেডিংলিতে খেলতে নামতে হবে অস্ট্রেলিয়াকে।

তবে স্মিথকে দুয়োধ্বনি দেয়া দর্শকদের উদ্দেশ্যে মুখ খুলেছেন এডামস। সিডনি মর্নিং হেরাল্ডকে তিনি বলেন, ‘লর্ডসে বেশিরভাগ দর্শকই স্মিথের ইনিংসের প্রশংসা করেছেন। তবে কিছু দর্শক স্মিথকে টিটকারি করেছে, যা খবর হিসেবে তৈরি করেছে। এটি বিরক্তিকর এবং আমাদের মনে রাখতে হবে, অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড় যা করেছে এজন্য তাদের শাস্তিও দেয়া হয়েছে এবং তারা ভোগও করেছে।’

এছাড়া স্মিথের প্রশংসাও করেছেন এডামস, ‘অবশ্যই স্মিথ একজন দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান। তবে আমি চাই না সে খুব বেশি রান পান। তিনি দেখার জন্য মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন এবং ক্রিকেট ভক্ত হিসেবে আমাদের এজন্য প্রশংসা করা উচিত। তবে ব্যঙ্গ বা বিদ্রুপ করে নয়।’

বার্মিংহামে প্রথম টেস্ট জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। লর্ডসের টেস্ট ড্র হয়।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com