জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
তদন্ত প্রতিবেদন আলোর মুখ দেখবে কবে

তদন্ত প্রতিবেদন আলোর মুখ দেখবে কবে

কুমিল্লা প্রতিনিধি :
ফাইল ছবি

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষসহ অন্যান্যদের দুর্নীতির তদন্ত প্রতিবেদন নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন কবে আলোর মুখ দেখবে তা জানে না কেউ।
সদ্য বিদায়ী অধ্যক্ষ রতন কুমার সাহা, শিক্ষক ও কর্মচারী নেতাদের একাংশ টাকা লুটপাটের সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে। এ নিয়ে গঠিত তদন্ত রিপোর্ট নিয়ে শুরু হয়েছে নানা টালবাহানা। তবে তদন্ত কমিটির প্রধান বলছেন, তদন্ত সম্পন্ন করে প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়েছে। বর্তমান অধ্যক্ষ প্রফেসর রুহুল আমীন ভুইয়া বলছেন, তিনি প্রতিবেদন পাননি।
গত ১১ জুন চাকরি শেষ হওয়ার অল্প কয়েক মাস আগে দুর্নীতি, রাজনৈতিক বিতর্ক, নারী কেলেঙ্কারিসহ নানা অভিযোগ মাথায় নিয়ে বিদায় নেন রতন কুমার সাহা। ১২ জুন থেকে অধ্যক্ষ পদে দায়িত্ব গ্রহণ করেন কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের সদ্য বিদায়ী চেয়ারম্যান প্রফেসর রুহুল আমিন ভূঁইয়া।

ভিক্টোরিয়া কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর রতন কুমার সাহার দুর্নীতি নিয়ে স্থানীয় ও জাতীয় পত্র-পত্রিকায় তথ্য নির্ভর একাধিকবার সংবাদ প্রকাশিত হয়। এতে সাবেক অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে গেল ১৫ জুন পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেন কলেজের নতুন অধ্যক্ষ।

৩০ জুন প্রতিবেদন জমার তারিখ নির্ধারণ করা হয়। ১৫ দিন তদন্তের কাজ করেও সম্পন্ন করতে পারেনি তদন্ত কমিটি। যার ফলে নির্ধারিত তারিখে প্রতিবেদন জমা না দিয়ে সময় বৃদ্ধির আবেদন করেন কমিটি।

পরবর্তী ৮ জুলাই নির্ধারণ করেন অধ্যক্ষ। তবে অদৃশ্য কারণে ৮ জুলাই ও প্রতিবেদন জমা না দিয়ে আবার সময় বাড়ানোর আবেদন করে তদন্ত কমিটি। তখন আবার তৃতীয় বারের মত তদন্তের সময় বাড়িয়ে ২২ জুলাই নির্ধারণ করে কর্তৃপক্ষ। তবে সে তারিখেও প্রতিবেদন জমা দিতে পারেনি তদন্ত কমিটি।

কলেজের একাধিক সূত্র জানায়, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ৪০টিরও বেশি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট রয়েছে। প্রায় প্রতিটি অ্যাকাউন্ট থেকে নয়-ছয় করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সর্বাধিক টাকা লুটপাটের তালিকায় রয়েছে মসজিদ ফান্ড, কর্মচারী কল্যাণ ফান্ড, শিক্ষা সফর ফান্ড, আইসিটি খাতসহ সব কটি খাতে টাকা লুটপাট হয়েছে ব্যাপক হারে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে তদন্ত কমিটির একজন সদস্য বলেন, এ বিষয়ে আমাদের কথা বলা নিষেধ আছে। তবে কলেজের স্বার্থে আজ আমরা বলতে বাধ্য হচ্ছি যে, এ প্রতিবেদন জমা আমরা বহু আগেই দিতে চেয়েছিলাম, খসড়া করেছি। বারবার এতে পরিবর্তন করা হয়েছে। যাদের বিরুদ্ধে এ প্রতিবেদন তারা রাতে দিনে, মোবাইল ফোনে, সরাসরি বহুবার আমাদের অনুনয় বিনয়, কাকুতি করে বুঝিয়েছেন যাতে আমরা কিছুটা সময় ক্ষেপণ করি। চলতি মাসের মাঝামাঝি এসে নানা ভাবে চাপও সৃষ্টি করেছে। এ প্রতিবেদন ঘষা-মাজার চেষ্টা চলছে। এর বেশি আর কী বলবো, আমরাও তো চাকরি করি।

ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের একজন বিভাগীয় প্রধান বলেন, শুধু যে রতন সাহেব টাকা লুট করেছেন তা নয়। যারা বিল তৈরি করেছে। যে ফান্ড থেকে টাকা নেয়া হয়েছে সে কমিটি জড়িত আছে। যারা এ বিলের অনুমোদন দিয়েছেন তারাও জড়িত রয়েছে।

তদন্ত কমিটির প্রধান ও সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর মো. মোশারফ হোসেন বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন অধ্যক্ষের নিকট জমা হয়েছে। এ বিষয়ে আমরা কিছু যেন না বলি, এর জন্য নিষেধ আছে। যা বলার অধ্যক্ষ বলবেন।

এ বিষয়ে কলেজের নতুন অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. রুহুল আমিন ভূঁইয়া বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন আমার হাতে আসেনি। সুতরাং না দেখে কিছু বলতে পারবো না। তদন্ত কমিটির প্রধান বলেছেন, তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে কলেজ অধ্যক্ষ একই জবাব দেন। না, প্রতিবেদন আমার হাতে আসেনি।

এ বিষয়ে সচেতন নাগরিক কমিটি কুমিল্লার সভাপতি বদরুল হুদা জেনু বলেন, যে কোনো দুর্নীতির যথাযথ তদন্ত হওয়া উচিৎ। প্রাতিষ্ঠানিক দুর্নীতি হলে প্রতিষ্ঠান প্রধানের উচিত দ্রুত তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া। আর প্রতিষ্ঠান প্রধানের এ বিষয়ে যদি কোনো সীমাবদ্ধতা থাকে তবে তার উচিত হবে উচ্চ পর্যায়ের সহযোগিতা নেয়া।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. আবদুস সালাম বলেন, ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের এই দুর্নীতির বিষয়টি বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় আসাতে আমি যতটুকু জানি, মন্ত্রণালয় এ বিষয়টি দেখছে। আর ভিক্টোরিয়া কলেজ কর্তৃপক্ষ তদন্ত কমিটি করেছে কিনা আমার জানা নেই। যদি তারা তদন্ত কমিটি করে থাকে তাহলে উচিত হবে এ তদন্ত কমিটির রিপোর্ট দ্রুত সবার সামনে উপস্থাপন করা।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com