জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
‘স্বচ্ছ ভারত’ প্রকল্পের জন্য আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলেন প্রধানমন্ত্রী

‘স্বচ্ছ ভারত’ প্রকল্পের জন্য আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলেন প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

২০১৪ সালে শুরু করা ‘স্বচ্ছ ভারত’ প্রকল্পের ন্য স্বীকৃতি পেলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । তাঁর সরকারের ‘স্বচ্ছ ভারত’ প্রকল্পের জন্য ‘গোলকিপার গ্লোবাল গোলস অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন তিনি । মাইক্রোসফট-এর প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অধিবেশনের ফাঁকে ওই পুরস্কার প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। ‘বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন’-এর উদ্যোগে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, দারিদ্র ও অসাম্য দূর করতে বিশ্ব জুড়ে নেতাদের একত্রিত করাই এই পুরস্কারের উদ্দেশ্য।

নরেন্দ্র মোদি জানিয়েছেন, ‘‘গান্ধির স্বপ্নের ‘স্বচ্ছ ভারত’ এখন সত্যি হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’ জানিয়েছে এই প্রকল্পের ফলে তিন লক্ষ মানুষ রোগের প্রকোপ থেকে বেঁচেছেন। এমন এক প্রকল্প যার কথা কখনও শোনা যায়নি। মহাত্মা গান্ধির ১৫০-তম জন্মবার্ষিকীতে এই পুরস্কার প্রাপ্তি আমার কাছে ব্যক্তিগত প্রাপ্তি। ১৩০ কোটি মানুষ যখন প্রতিজ্ঞা করেন, সব চ্যালেঞ্জেরই মোকাবিলা করা যায়।”

২০১৪ সালের অক্টোবরে মহাত্মা গান্ধির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এই ‘স্বচ্ছ ভারত’ প্রকল্পের সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। লক্ষ্য ছিল দেশজুড়ে কঠিন ও তরল বর্জ্য থেকে মুক্ত পরিচ্ছন্নতা। পাশাপাশি খোলা জায়গায় শৌচ আটকানোও এই প্রকল্পের অন্তর্গত ছিল।প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘পর্যাপ্ত শৌচাগারের অভাবে বহু মেয়েকে স্কুল ছাড়তে হয়েছে। আমাদের মেয়েরা পড়তে চায়। কিন্তু পর্যাপ্ত শৌচাগারের অভাবে মাঝপথেই পড়াশোনা ছেড়ে দিতে বাধ্য হত অনেকে। স্বচ্ছ ভারত প্রকল্প সেটা বদলে দিয়েছে।”তিনি আরও বলেন, স্বচ্ছ ভারত সমীক্ষা করে দেখা গিয়েছে ভারতের রাজ্যগুলি একে অপরের সঙ্গে পরিচ্ছন্নতা নিয়ে প্রতিযোগিতা করছে।

‘স্বচ্ছ ভারত’ প্রকল্প বিশ্বের বৃহত্তম আচরণগত পরিবর্তনের প্রকল্প। ‘স্বচ্ছ ভারত’-এৱ ওয়েবসাইটে সরকারের তরফে বলা হয়েছে, আচরণগত পরিবর্তন স্বচ্ছ ভারত প্রকল্পের চালিকা শক্তি।২০১৭ সালের প্রথম ‘গোলকিপার্স ইভেন্ট’-এ বহু বিশ্বনেতাকে দেখা গিয়েছিল। দেখা গিয়েছিল খ্যাতিমান বক্তাদেরও। যেমন- কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডে, প্রাক্তন মার্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা এবং সমাজকর্মী মালালা ইউসুফজাই।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com