জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
কাল মাঠে ফিরছে ক্রিকেট ১১৬ দিন পর

কাল মাঠে ফিরছে ক্রিকেট ১১৬ দিন পর

ক্রীড়া ডেস্ক:
মহামারি করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাব বেড়ে যাওয়ায় গেল মার্চ থেকে থেমে যায় বিশ্ব ক্রিকেট। করোনার প্রকট এখনো কমেনি। তারপরও আর হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকতে রাজি নয় ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আমন্ত্রন জানিয়ে আগামীকাল বুধবার থেকে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ শুরু করতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড। সাউদাম্পটনে সিরিজের প্রথম টেস্টটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায়। জীবাণুমক্ত ও রুদ্ধদার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে করোনাকালীন ঐতিহাসিক টেস্টটি।
চলতি বছরের ১৩ মার্চ সিডনিতে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে খেলেছিলো অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড। রুদ্ধদার স্টেডিয়ামে হওয়া ঐ ম্যাচটি ৭১ রানে জিতেছিলো অস্ট্রেলিয়া। সেটিই ছিলো, সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। ঐ ম্যাচের পরই করোনার কারণে সিরিজটি স্থগিত হয়ে যায়। এরপর আর কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচ হয়নি।

তবে কাল থেকে আবারো মাঠে ফিরছে ক্রিকেট, এতেই স্বস্তি ক্রিকেট সংশ্লিষ্টদের। তারপরও মনের মধ্যে নানা কৌতুহল তো থাকছেই। কারণ এই টেস্টকে ঘিরে ব্যাপক আয়োজন ইসিবির। আয়োজনের পুরোটা জুড়েই রয়েছে সুরক্ষাবলয়।

ক্রিকেটার-স্টাফ থেকে শুরু করে ধারাভাষ্যকার, কর্মকর্তা, সকলকে রাখা হচ্ছে সুরক্ষিত বলয়ের মধ্যে। সাউদাম্পটনের মাঠের মধ্যেই রয়েছে হোটেল। সেখানেই থাকছেন ক্রিকেটার, ধারাভাষ্যকার, সকলে।

ক্রিকেটারেরা অনেক আগ থেকেই রয়েছেন সুরক্ষিত বলয়ে। আজ থেকে ধারাভাষ্যকারদেরও হোটেলে রুম দেয়া হচ্ছে। ধারাভাষ্য কক্ষে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা হবে। ধারাভাষ্যের মাঝে নিজের রুমের ব্যালকনিতে বসে খেলা দেখতে পারবেন তারা।

খেলোয়াড়দের জন্য রাখা হয়েছে, সর্বোচ্চ চিকিৎসা ব্যবস্থা। খেলা চলাকালীন কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে, তাকে সব ধরনের চিকিৎসা দিতে প্রস্তুত সাউদাম্পটনের কর্মকর্তারা। মাঠের চারপাশে হ্যান্ড-স্যানিটাইজারের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

এই টেস্টকে চ্যালেঞ্জ হিসেবেই দেখছেন ইসিবির প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসন। তিনি বলেন, ‘ক্রিকেট মাঠে ফিরছে, এতেই আমরা খুশী। তবে আমাদের ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হতে যাচ্ছে আগামীকালের টেস্ট। সবকিছু ঠিক-ঠাক সম্পন্ন করতে হবে আমাদের। আমরা প্রস্তুত। সব ধরনের সুরক্ষা বলয় নিয়ে আমরা তৈরি’।

ইংল্যান্ডের জন্য যে, এটি চ্যালেঞ্জের সেটি বলতে দ্বিধাবোধ করেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান কোচ ফিল সিমন্স। এই টেস্টটি বিশ্ব ক্রিকেটের জন্য বড় ধরনের উদাহরণ হবে বলে জানান সিমন্স, ‘ইংল্যান্ডে এই টেস্ট ম্যাচ উদাহরণ হতে চলেছে। এটা অন্যদের দেখিয়ে দিতে পারে, কঠিন সময়ে কী ভাবে খেলা সম্ভব। ইংল্যান্ড বোর্ডের প্রশংসা প্রাপ্য যে এই কঠিন পরিস্থিতির মাঝেও ম্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে মানুষও এখন মানসিকভাবে চিন্তিত। এই ক্রিকেট ম্যাচ দেখে মানুষও কিছুটা আনন্দিত হবে, উপভোগ করার সুযোগ পাবে’।
এই সিরিজ থেকে অন্যান্য দেশও ক্রিকেটকে ফেরানোর সাহস পাবে বলে মনে করেন সিমন্স, ‘করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও ক্রিকেট কীভাবে শুরু করা যাবে, এই সিরিজ সেই নকশা সকলের সামনে তুলে ধরবে। এখানকার মত বিশ্বের সকল দেশও ক্রিকেট নিয়ে মেতে উঠুক এমনটাই আমি চাই’।

আবারো ক্রিকেট লড়াইয়ে মাঠে নামতে মুখিয়ে আছেন ইংল্যান্ডের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক বেন স্টোকস। তিনি বলেন, ‘সাউদাম্পটনে মাঠে সুরক্ষাবলয় দেখে, আমি অবাকই হয়েছি। এখানকার কর্মকর্তার কতটা পরিশ্রম করেছে। তাদের পরিশ্রমের প্রতিদান দিতে আমরা মাঠে ফিরতে মুখিয়ে আছি। আশা করি, সব কিছু সঠিক পরিকল্পনায় হবে। দু’দলের খেলোয়াড়রা ম্যাচটি উপভোগ করবে’।

স্টোকসের সুরে কথা বললেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। ম্যাচ আয়োজনের জন্য যারা সর্বক্ষণ পরিশ্রম করেছেন, তাদের ধন্যবাদও দিয়েছেন হোল্ডার, ‘একটি ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনের জন্য এতটা পরিশ্রম করতে আমি কখনো দেখিনি। এখানে যেভাবে সবকিছু নিয়ন্ত্রন করা হচ্ছে। আসলে, বর্তমান পরিস্থিতিতে সবাইকে সচেতন হতে হবে। আমরাও সকল দিক-নির্দেশনা মানছি, যাতে কেউ কোন ধরনের সমস্যায় না পড়ে। সবকিছু ঠিক-ঠাকভাবে হলে বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যান্য বোর্ডও সাহস পাবে ক্রিকেটকে ফেরাতে’।

ইংল্যান্ড দল :
বেন স্টোকস (অধিনায়ক), জেমস এন্ডারসন, জোফরা আর্চার, ডোমিনিক বেস, স্টুয়ার্ট ব্রড, ররি বার্নস, জশ বাটলার, জাক ক্রলি, জো ডেনলি, ওলি পোপ, ডম সিবলি, ক্রিস ওকস ও মার্ক উড।

রিজার্ভ : জেমস ব্রেসি, স্যাম কারান, বেন ফোকস, ড্যান লরেন্স, জ্যাক লিচ, সাকিব মাহমুদ, ক্রেইগ ওভারটন, ওলি রবিনসন ও ওলি স্টোন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল :
জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), জার্মেইন ব্ল্যাকউড, এনক্রমাহ বোনার, ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট, শামারা ব্রুকস, জন ক্যাম্পবেল, রোস্টন চেইজ, রাকিম কর্নওয়াল, শেন ডওরিচ, চিমার হোল্ডার, শেই হোপ, আলজারি জোসেফ, শ্যানন গাব্রিয়েল, রেমন রিফার ও কেমার রোচ।

রির্জাভ : সুনীল অ্যামব্রিস, জুসয়া ডি সিলভা, কিয়ন হার্ডিং, কাইল মেয়ারস, প্রিস্টন ম্যাকসুইন, মারকুইনো মিন্ডলি, শেন মোসলে, এন্ডারসন ফিলিপ, ওসানে থমাস ও জোমেল ওয়ারিকেন।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com<br>This site create and maintenance by Fahim Shaon.  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com