জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
টেস্ট নিয়ে উচ্ছ্বসিত ভারত-ইংল্যান্ড বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়ামের

টেস্ট নিয়ে উচ্ছ্বসিত ভারত-ইংল্যান্ড বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়ামের


ক্রীড়া ডেস্ক :
চার ম্যাচ সিরিজে আগামীকাল তৃতীয় টেস্টে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত ও ইংল্যান্ড। ম্যাচটি দিবা-রাত্রির। আহমেদাবাদের মোতেরায় সরদার প্যাটেল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে টেস্টটি। বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় ম্যাচটি নিয়ে উচ্ছ্বসিত দুই দলই।
ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) সম্প্রতি স্টেডিয়ামটির একটি ভিডিও নিজেদের টুইটারে আপলোড করেছে। এই স্টেডিয়ামের অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন একাধিক অনুশীলনের পিচ তৈরি করা হয়েছে।

২০১৭ সালে মোতেরা স্টেডিয়ামের নিমার্ণের কাজ শুরু হয়। ৬৩ একর জায়গা জুড়ে অবস্থিত এই স্টেডিয়ামের নির্মাণ কাজে খরচ হয়েছে ৭০০ কোটি রুপির বেশি।

এই মাঠের আসন সংখ্যা সর্বাধিক ১ লাখ ১০ হাজার হলেও করোনা পরিস্থিতির জন্য মাত্র ৫৫ হাজার টিকিট বাজারে ছেড়েছিল বিসিসিআই। অন-লাইনে টিকিট ছাড়ার একদিনের মধ্যে সব টিকিট বিক্রি হয়ে গিয়েছে। সিরিজের তৃতীয় টেস্টকে ঘিরে ক্রিকেটপ্রেমিদের উত্তেজনা আকাশ ছোয়া।

এত বড় স্টেডিয়ামের অভিষেকে দিবা-রাত্রির টেস্ট নিয়ে অনেক বেশি উত্তেজিত ভারত ও ইংল্যান্ড। গেল শনিবার প্রথমবার এই স্টেডিয়ামে অনুশীলনে আসার পর অবাক হয়েছেন ভারতের ক্রিকেটাররা। অনুশীলন শুরুর আগে ঘুরে ঘুরে স্টেডিয়ামটি পর্যবেক্ষণ করেছেন তারা। বাদ যায়নি ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররাও।

ভারতের ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পূজারার মন্তব্য, ‘বিরাট এক স্টেডিয়াম। মোতেরায় প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট খেলতে মুখিয়ে আছি আমরা। অসাধারণ মাঠ। আমরা প্রত্যেকটি সুবিধা উপভোগ করছি। ড্রেসিংরুমের পাশেই জিম রয়েছে। ফলে ম্যাচ চলাকালীনও কেউ ইচ্ছে করলে গা ঘামিয়ে নিতে পারে। এখানে এখন পর্যন্ত দারুণ সব কাটছে’।

এরমধ্যে সিরিজের বর্তমান পরিস্থিতির কথাও মাথায় রাখছে ভারত ও ইংল্যান্ড। সিরিজে ১-১ সমতা বিরাজ করছে। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলতে হলে শেষ দুই টেস্টে একটি করে জয় ও ড্র চাই ভারতের। আর ইংল্যান্ডের প্রয়োজন দু’টি জয়।

ইংল্যান্ডের লর্ডসে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে হলে নতুন স্টেডিয়ামে জয়ের গুরুত্ব জানেন ভারতের সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

তিনি বলেন, নতুন স্টেডিয়ামে নামার জন্য মুখিয়ে আছে সবাই। এত বড় স্টেডিয়ামে খেলতে নামবো ভাবতেই শিহরিত আমরা। তবে এই ম্যাচটি গুরুত্ব অনেক বেশি। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলার জন্য এক পা দিয়ে রাখতে জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবছি না আমরা। দিবা-রাত্রির ম্যাচ তাই আমরা বেশ সতর্ক। প্রতিপক্ষও শক্তিশালী দল। প্রথম টেস্ট হারলেও, দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুড়ে দাঁড়ানোটা আমাদের বাড়তি আত্মবিশ্বাস যুগিয়েছে।

মোতেরার পিচে ঘাস থাকার সম্ভবনাই রয়েছে। পেসাররা বাড়তি সুবিধা পাবে। এই টেস্টে স্পট লাইটে থাকবে দুই দলের পেসাররা। তাই মোতেরার পিচ নিয়ে হুংকার দিয়ে রাখলেন ইংল্যান্ডের পেসার জোফরা আর্চার।

তিনি বলেন, তৃতীয় টেস্টটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই টেস্টটা জিততে পারলে আামরা সিরিজটা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবো। অবশ্যই জেতা সম্ভব। আমরা সব সময় জেতার জন্যই খেলি। নতুন স্টেডিয়াম তাই সবকিছুই নতুনভাবে শুরু করতে হবে।

দ্বিতীয় টেস্টে কনুইয়ের ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি আর্চার। দিবা-রাত্রির টেস্টে খেলার ব্যাপারে আশাবাদি তিনি, ‘এখন আমি খুব ভাল অবস্থায় আছি। কোনও সমস্যা নেই’।

গোলাপি বলের টেস্টের উত্তেজনা স্পর্শ ইংল্যান্ডের আরেক পেসার বেন স্টোকসকেও। মোতেরায় নবনির্মিত সরদার প্যাটেল স্টেডিয়ামে গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির ম্যাচ খেলতে ইংলিশ অলরাউন্ডারের জিভে জল আসছে বলে জানিয়েছেন স্টোকস।

স্টোকস বলেন, আমি বলে দিতে পারি স্টুয়ার্ট ব্রড, জেমস এন্ডারসন এবং জোফরা আর্চারদের জিভে জল আসছে। এটা পুরোপুরি ভিন্ন রকমের খেলা। এখানে অনুশীলন পর্বটা মজার ছিল। আমরা এখানে অনুশীলন উপভোগ করেছি। তাই এখনই কল্পনা করছি, ম্যাচ চলাকালীন কি হতে পারে। সে কারণেই দিবা-রাত্রির টেস্টের উত্তেজনা আমাদের স্পর্শ করছে।

এখনও পর্যন্ত দু’টি দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলেছে ভারত। একটি ঘরে মাঠে, অন্যটি অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে। ২০১৯ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে ঐ টেস্টটি ইনিংস ও ৪৬ রানে জিতেছিলো ভারত। আর গত ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়া সফরে অ্যাডিলেডের টেস্ট ৮ উইকেটে হারে বিরাট কোহলির দল।

তিনটি দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে ইংল্যান্ডের। ২০১৭ সালে বার্মিংহামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ইনিংস ও ২০৯ রানের বড় জয় পেয়েছিলো ইংলিশরা।

তবে পরের দুই ম্যাচেই হেরেছে ইংল্যান্ড। অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ১২০ রানে ও অকল্যান্ডে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস ও ৪৯ রানে ম্যাচ হারে ইংলিশরা।

আগামীকাল ভারত-ইংল্যান্ডের মধ্যকার দিবা-রাত্রির টেস্টটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ৩টায়।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com