জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
পুরুষ এবং নারীকে ভিন্ন চোখে আর কতকাল দেখবে মানুষ?

পুরুষ এবং নারীকে ভিন্ন চোখে আর কতকাল দেখবে মানুষ?

তসলিমা নাসরিন

বাংলাদেশের এক লেখক নাট্যকার সেলিম আল দীনের প্রতি অত্যন্ত শ্রদ্ধা ভরে লিখেছেনঃ

”সেলিম আল দীন প্রেমিক পুরুষ ছিলেন। জীবনে একাধিক প্রেম করেছেন। সেসব প্রেমের কথা তিনি অকপটে স্বীকার করেছেন। তাঁর প্রেমিকাদের সম্পর্কে জানতে আপনারা পড়ে নিতে পারেন তাঁর ‘ভাঙা প্রেম অশেষ বিশেষ’ বইটি। ঢাকার জাগৃতি প্রকাশনী থেকে বইটি প্রকাশিত হয়। ঢাকার দীপনপুরে বইটি পাওয়া যায়। এছাড়াও তাঁর জীবনের নানা কথা তিনি লিখেছেন তাঁর দিনলিপিতে। নারীদের প্রতি তিনি কতটা শ্রদ্ধাশীল ছিলেন, ছাত্রীদের তিনি কতটা স্নেহ করতেন, পিতার মতো কীভাবে আগলে রাখতেন, তা তাঁর ছাত্র-ছাত্রী, ভক্ত-শিষ্য সবার জানা।
ঋষিতুল এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে, বাংলা নাটকের এই প্রাণপুরুষের বিরুদ্ধে মুশফিকা লাইজু যে অভিযোগ তুলেছেন, তা সম্পূর্ণ কাল্পনিক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মনে করছি। আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আশা করি মুশফিকা লাউজু সাক্ষ-প্রমাণহীন তাঁর এই কাল্পনিক অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেবেন।”

বুঝি না আমার সম্পর্কে লিখতে গিয়ে কেউ আজ পর্যন্ত শ্রদ্ধায় গদগদ হয়ে এ রকম ভাবে লিখলো না কেন। যেমনঃ

” তসলিমা নাসরিন প্রেমিকা নারী ছিলেন। জীবনে একাধিক প্রেম করেছেন। সেসব প্রেমের কথা তিনি অকপটে স্বীকার করেছেন। তাঁর প্রেমিকদের সম্পর্কে জানতে আপনারা পড়ে নিতে পারেন তাঁর ‘উতল হাওয়া’ আর ‘দ্বিখন্ডিত (ক)’ বইদুটো। কলকাতার পিবিএস থেকে বইদুটো প্রকাশিত হয়। নীলক্ষেতের ফুটপাথে বইদুটোর পাইরেট এডিশন পাওয়া যায়। এছাড়াও তাঁর জীবনের নানা কথা তিনি লিখেছেন তাঁর আত্মজীবনীগুলোয়। পুরুষদের প্রতি তিনি কতটা শ্রদ্ধাশীল ছিলেন, জুনিয়রদের তিনি কতটা স্নেহ করতেন, মায়ের মতো কীভাবে আগলে রাখতেন, তা তাঁর পাঠক পাঠিকা, ভক্ত-শিষ্য সবার জানা।

দেবিতূল্য এই লেখিকার বিরুদ্ধে, বাংলা সাহিত্যের এই প্রাণনারীর বিরুদ্ধে সমাজের পুরুষগোষ্ঠী যে অভিযোগ তোলেন, তা সম্পূর্ণ কাল্পনিক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে মনে করছি। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আশা করি পুরুষগোষ্ঠী সাক্ষ-প্রমাণহীন তাঁদের কাল্পনিক অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেবেন।”

আমি কাউকে এ জীবনে যৌন হেনস্থা করিনি। তারপরও আমার পক্ষে চিৎকার করা দূরে থাক, মিনমিন করেও খুব বেশি কাউকে বলতে শুনিনা। বরং যত অশ্রাব্য গালি দুনিয়াতে আছে, সবই আমার ওপর বর্ষিত হয়।

পুরুষ এবং নারীকে ভিন্ন চোখে আর কতকাল দেখবে মানুষ?

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com