জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
গর্ভধারণের প্রাথমিক ১০ লক্ষণ

গর্ভধারণের প্রাথমিক ১০ লক্ষণ

প্রতীকী ছবি
যুগ-যুগান্তর ডেস্ক : কোনো নারী গর্ভবতী হলে এটা আর গোপন থাকে না। তার শরীরই বিভিন্ন লক্ষণ প্রকাশ করে জানান দেয় সে গর্ভবতী। গর্ভাবস্থার প্রাথমিক পর্যায়ে কোনো নারীর মধ্যে কিছু লক্ষণ দেখা দেয়, যা লক্ষ্য করলে ধারণা করা যায় সে গর্ভবতী। নিশ্চিত হওয়ার জন্য প্রেগন্যান্সি টেস্ট করে নিতে পারেন। এখানে প্রেগন্যান্সির খুবই প্রাথমিক ১০টি লক্ষণ আলোচনা করা।

* প্রিয় খাবারের স্বাদ বাজে লাগতে পারে
প্রত্যেকেরই কিছু না কিছু প্রিয় খাবার রয়েছে যা তারা প্রতিসপ্তাহে নিয়মিত খেয়ে থাকে। যদি পিজ্জার স্বাদ পয়জনের মতো লাগে অথবা আপনার সার্ডিন মাছ (একটি উদাহরণ, আপনার অন্যান্য খাবারের প্রতিও আকুল আকাঙ্ক্ষা থাকতে পারে) খাওয়ার জন্য অদ্ভুত আকাঙ্ক্ষা জন্মায়, তাহলে আপনি সম্ভবত গর্ভবতী। নিউইয়র্কের অধিবাসী ও দুই সন্তানের জননী মনিকা ম্যারিনো বলেন, ‘আমার উভয় গর্ভাবস্থায় সালাদের স্বাদ হঠাৎ বিদঘুটে লেগেছিল, কিন্তু আমি সালাদ পছন্দ করি।’

কফির ক্ষেত্রেও এমনটা হতে পারে। পিটসবার্গের অধিবাসী ও এক সন্তানের মা আলেকজান্দ্রা কোনলন তার প্রথম লক্ষণ শেয়ার করেন: তার কাছে কফির স্বাদ বিদঘুটে লেগেছিল। তিনি বলেন, ‘এটি ছিল সম্পূর্ণ অদ্ভুত। সেই সময় আমি প্রচুর কফি পান করতাম। আমার পিরিয়ড মিসের এক সপ্তাহ পূর্বে এটা ঘটেছিল।’

কেন এমনটা হয়? গর্ভাবস্থায় হরমোন বৃদ্ধিরর কারণে এমনটা হতে পারে- আপনার প্রিয় খাবারের স্বাদ বিদঘুটে মনে হতে পারে এবং আপনার অদ্ভুত অদ্ভুত খাবার খাওয়ার জন্য তীব্র আকাঙ্ক্ষা জন্মাতে পারে, বলেন নার্স প্র্যাকটিশনার রিসা ক্লেইন।

* খাবার নয় এমন জিনিসের প্রতি আকাঙ্ক্ষা
নিউ ইয়র্কের অধিবাসী ও চার সন্তানের জননী কারেন ক্যাস্টিল্যানোস অনগাস্টিয়ার পিকা সিন্ড্রোম ছিল। পিকা সিন্ড্রোম হচ্ছে, এমন একটি ব্যাপার যেখানে লোকজনের খাবার নয় অথবা পুষ্টিমান নেই এমন জিনিস খাওয়ার জন্য আকাঙ্ক্ষা জন্মায়, যেমন- মাটি বা চক। অনগাস্টিয়ার প্রথম গর্ভাবস্থায় হঠাৎ চকের মতো উপাদান (বেবি পাউডার) খাওয়ার আকাঙ্ক্ষা জন্মেছিল। তার প্রত্যেক গর্ভাবস্থায় এমনটা হয়েছিল এবং এর দ্বারা তিনি বুঝতে পেরেছিলেন যে তিনি আবারও গর্ভবতী। তিনি বলেন, ‘কখনো কখনো পিকা সিন্ড্রোমের নারীদের আয়রন ঘাটতি থাকে। আমার প্রতি প্রেগন্যান্সিতে রক্তস্বল্পতা ছিল। গর্ভাবস্থায় আমি মাটি, চক ও বেবি পাউডারের মতো জিনিস খেতে চাইতাম। আমার প্রথম প্রেগন্যান্সির সময় বেবি পাউডার খাওয়ার জন্য এতই আকাঙ্ক্ষা জেগেছিল যে আমার মনে হয়েছিল যে আমি পাগল হয়ে যাচ্ছি এবং নিজেকে বুঝিয়েছিলাম যে বেবি পাউডার খাওয়া উচিৎ নয়। আমি চিকিৎসকে এ বিষয়ে জানালাম এবং তিনি কারণ ব্যাখ্যা করলেন।’

সাইকোথেরাপিস্ট ক্যাথরিন স্মারলিং বলেন, ‘কিছু গবেষকরা ধারণা করছেন যে, পুষ্টি বা আয়রনের অভাবে পিকা সিন্ড্রোম হয়ে থাকে। কিন্তু অন্যান্যদের ধারণা হলো পিকা সিন্ড্রোম হচ্ছে খাবার নয় এমন জিনিস খাওয়ার জন্য তীব্র আকাঙ্ক্ষা। যদি আপনার পিকা সিন্ড্রোম থাকে, তাহলে চিকিৎসকের কাছে ভিজিট করতে দেরি করবেন না এবং কোনো ঘাটতি আছে কিনা জানতে অবিলম্বে টেস্ট করা উচিত।’

* বমিবমি ভাব
নতুন গর্ভবতী নারীদের ক্ষেত্রে এই লক্ষণটি খুবই সাধারণ। ব্রুকলিনের অধিবাসী এবং তিন সন্তানের (দুটি জমজ) জননী হিদার উইলসন টমোয়াসুর প্রেগন্যান্সির প্রথম দিকে বমিবমি ভাব হয়েছিল এবং এর দ্বারা তিনি তার দ্বিতীয় প্রেগন্যান্সি বুঝতে পেরেছিলেন। তিনি বলেন, ‘যখন আমি পরিবারের সঙ্গে বাইরে বের হয়েছিলাম আমার বমিবমি ভাব হয়েছিল। এটি ছিল আমার পরবর্তী পিরিয়ডের কয়েকদিন পূর্বে। এটি নিয়ে আমার স্বামীর সঙ্গে হাসি-তামাশা করেছিলাম, এটি এত তাড়াতাড়ি হয়েছিল যে আমরা না হেসে পারলাম না।’ তিনি যোগ করেন, ‘যদিও বুঝতে পেরেছিলাম যে আমি গর্ভবতী, কিন্তু তবুও আমি প্রেগন্যান্সি টেস্ট করেছিলাম। তিন সপ্তাহ পর আমার আল্ট্রাসাউন্ড জানাল যে আমি জমজ সন্তানের মুখ দেখতে যাচ্ছি!’

* অত্যধিক ক্লান্তি
ডা. স্মারলিং বলেন, নারীরা তাদের প্রেগন্যান্সির প্রাথমিক পর্যায়ে অত্যধিক ক্লান্তি অনুভব করতে পারে। নারীদের কনসেপশনের এক সপ্তাহ পর এই লক্ষণটি দেখা দিতে পারে। ব্লাড ভলিউম বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে আপনি আলস্য অনুভব করবেন, বর্ধিত ব্লাড ভলিউমের কারণে হার্টের পক্ষে কাজ করা কঠিন হয়ে পড়ে।’ ওহাইওর অধিবাসী ও দুই সন্তানের জননী অ্যামান্ডা বেনিস পোটার বলেন, ‘আমার ভয়াবহ ক্লান্তি ছিল এবং সেইসঙ্গে মাথাব্যথাও। আমার এত বেশি ক্লান্তি লাগছিল যে আমি অবিলম্বে কর্মক্ষেত্র থেকে ঘরে ফিরে গিয়েছিলাম এবং আমার স্বামী আমাকে ডিনারের জন্য না জাগানো পর্যন্ত আমি ঘুমিয়েছিলাম।’

* ঘনঘন মূত্রত্যাগ করা
যদি আপনাকে সারাদিন ঘনঘন মূত্রত্যাগ করতে হয়, তাহলে আপনি সম্ভবত গর্ভবতী। ডা. স্মারলিং বলেন, এটি সম্পূর্ণরূপে স্বাভাবিক এবং এটি হওয়ার কারণ হচ্ছে: আপনার কিডনি শরীরের অতিরিক্ত তরল ফিল্টার করার জন্য ওভারটাইম কাজ করছে।

* পেটফাঁপা
প্রাথমিক গর্ভাবস্থার অন্যতম লক্ষণ হচ্ছে, পেটফাঁপা। ডা. স্মারলিং বলেন, ‘হরমোন প্রজেস্টেরন বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে আপনার পেট নরম ও ফাঁপা অনুভূত হতে পারে।’

* স্তনে ফোলা
ডেলিভারির কয়েক মাস পূর্বে স্তন ফুলে যেতে পারে, অনেক নারীর ক্ষেত্রে প্রথম মিসড পিরিয়ডের পূর্বে স্তনে ফোলা হতে পারে। দুই সন্তানের মা ক্যান্ডিস কিলপ্যাট্রিক ব্রেথওয়েট বলেন, ‘আমি তখন লাওসে থাকতাম ও মোটরবাইক ট্যাক্সিতে যাতায়াত করতাম। খানাখন্দের সড়কে গাড়ি চলার সময় আমার স্তন লাফালাফি করত, কিন্তু আমার স্তন স্বাভাবিকভাবে বড় ছিল না। এটি হচ্ছে একটি প্রাথমিক লক্ষণ যা আমি লক্ষ্য করেছি।’ ডা. স্মারলিং বলেন, ‘শুধু আপনার স্তনই উল্লেখযোগ্য ফুলে যাবে না, আপনার নিপলও অধিক সেনসিটিভ অনুভূত হতে পারে এবং নিপলের চারপাশের ত্বক স্ফীত ও বর্ণের পরিবর্তন হতে পারে। আপনার হরমোন স্তনের দুধ-উৎপাদনকারী গ্রন্থির বিকাশে প্রণোদনা দিচ্ছে।’

* মেজাজ পরিবর্তন
তিন সন্তানের মা শেলী ইসমাইল বলেন, ‘প্রাথমিক গর্ভাবস্থার একটি লক্ষণ হচ্ছে, সাধারণত বিরক্তির কারণ হয় না এমন বিষয়েও হঠাৎ করে মেজাজ খারাপ হওয়া। আপনার প্রথম ট্রাইমেস্টারে এই মেজাজ খারাপের প্রক্রিয়া বা মুড সুইং থাকবে। আমি মনে করি যে আমার হরমোন মাত্রার পরিবর্তনের কারণে এমনটা হয়েছিল।’ তিনি বলেন, মুহূর্তের মধ্যে তার মেজাজ পরিবর্তন হয়ে অত্যধিক খারাপ হয়ে যেত।

* ক্র্যাম্পিং
ওহাইওর অধিবাসী ও তিন সন্তানের জননী নাটালি ম্যাককিউন বলেন, ‘আমার তিন সন্তানের মধ্যে দুই সন্তান গর্ভে থাকার সময় আমার প্রাথমিক গর্ভাবস্থায় অত্যধিক ক্র্যাম্পিং হয়েছিল। এটি পিরিয়ড ক্র্যাম্পিংয়ের মতো ছিল না, এটি তার থেকে এতটা ভিন্ন ছিল যে আমি প্রেগন্যান্সি টেস্ট করেছিলাম। উভয় সময়েই আমি সঠিক ছিলাম।’ ডা. স্মারলিং বলেন, এটি অতি প্রাথমিক গর্ভাবস্থার একটি নির্দিষ্ট লক্ষণ। তিনি বলেন, ‘পাকস্থলীর ক্র্যাম্পিং (পিএমএস ক্র্যাম্পের মতো নয়) প্রেগন্যান্সির প্রাথমিক লক্ষণ হতে পারে। হিউম্যান কোরিয়োনিক গোনাডোট্রপিন নামক হরমোনের কারণেও এটি হতে পারে, যা পেলভিক অঞ্চলে রক্তপ্রবাহ বৃদ্ধি করে।’

* পিইউপিপিপি র‍্যাশ
নিউ ইয়র্কের অধিবাসী ও দুই সন্তানের জননী ভ্যালেরি পিয়েরে-ক্যাডেট বলেন, ‘আইইউডি (ইন্ট্রাইউটেরাইন কন্ট্রাসেপটিভ ডিভাইস অথবা গর্ভনিরোধক যন্ত্র) থাকা সত্ত্বেও আমার র‍্যাশ ও চুলকানি হয়েছিল। এসব লক্ষণে আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে আমি গর্ভবতী হয়েছি। আমার দ্বিতীয় সন্তানের ক্ষেত্রে আমি জেনেছিলাম যে আমি গর্ভবতী, কারণ আমি পিইউপিপিপিতে (প্রুরিটিক আর্টিক্যারিয়াল প্যাপিউলস অ্যান্ড প্লেকস অব প্রেগন্যান্সি) ভুগছিলাম। আমার প্রথম সন্তানের ক্ষেত্রে এটা আমি জানতাম না। আমি মনে করেছিলাম যে এটি মশার কামড় অথবা খাবার বা ডিটারজেন্টের রিয়্যাকশন কিংবা ছারপোকার কামড়। যখন আমার ভয়াবহ চুলকানি হয়, আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে দ্বিতীয়বারের মতো মা হতে যাচ্ছি।’ অনেক নারী কখনো পিইউপিপিপির নাম শুনেননি, কিন্তু এটি প্রাথমিক প্রেগন্যান্সির একটি লক্ষণ হতে পারে। ক্লেইন বলেন, ‘পিইউপিপিপি হচ্ছে প্রেগন্যান্সির একটি সর্বাধিক কমন স্কিন ডার্মাটোসিস। এটি প্রথম প্রেগন্যান্সির ক্ষেত্রে অত্যধিক কমন।’

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com