জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
২৬৩ রানে এগিয়ে ওয়ালটন

২৬৩ রানে এগিয়ে ওয়ালটন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) প্রথম রাউন্ডে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন ও প্রাইম ব্যাংক সাউথ জোন। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে আব্দুল মজিদের অপরাজিত ১৪১ রানের ইনিংসে ভর করে ২৮২ রানে অলআউট হয়েছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন। জবাবে প্রাইম ব্যাংক তাদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৫ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে ২৯ রান করে প্রথম দিন শেষ করেছে। ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের চেয়ে এখনো তারা ২৬৩ রানে পিছিয়ে রয়েছে। ক্রিজে আছেন শাহরিয়ার নাফীস (১৫) ও এনামুল হক বিজয় (৯)। তারা দুজন আগামীকাল বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনে ব্যাট করতে নামবেন।
সকালে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শূন্যরানেই উদ্বোধনী জুটির দুই ব্যাটসম্যানকে হারায় ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন। শফিউল ইসলামের করা ইনিংসের প্রথম ওভারের ৩ নম্বর বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরে যান লিটন কুমার দাস। এরপর আল-আমিন হোসেনের করা পরের ওভারের চতুর্থ বলে নুরুল হাসান সোহানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান সাইফ হাসান। এরপর অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত ও আব্দুল মজিদ মিলে ৪১ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু এই রানেই অধিনায়কও ফিরেন সাজঘরে। ৪ চারে ২৩টি রান আসে শান্তর ব্যাট থেকে।
৪৬ রানের মাথায় মার্শাল আইয়্যুবকে শাহরিয়ার নাফিসের হাতে ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে ফেরান রুবেল হোসেন। ৬১ রানের মাথায় শুভাগত হোমকে সরাসরি বোল্ড করেন আব্দুর রাজ্জাক। এরপর রুবেল হোসেনের বলে সোহানের হাতে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে তাইবুর রহমান আউট হলে ৭৩ রানেই ৬ উইকেট হারিয়ে বসে ওয়ালটন। সেখান থেকে আব্দুল মজিদের সঙ্গে দলীয় সংগ্রহকে ১৩০ রান পর্যন্ত টেনে নেন মোশাররফ হোসেন রুবেল। এই রানে আল-আমিন হোসেনের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন মোশাররফ রুবেল। ১৯টি রান করেন তিনি। ১৩১ রানের মাথায় আব্দুর রাজ্জাকও তার দ্বিতীয় উইকেট পূর্ণ করেন রবিউল হককে (০) ফিরিয়ে। এরপর আবু হায়দার রনি রাজ্জাকের তৃতীয় শিকারে পরিণত হলে ১৫৮ রানেই ৯ উইকেট হারিয়ে বসে ওয়ালটন।

এরপরের গল্পটুকু আব্দুল মাজিদ ও শহিদুল ইসলামের। আসা যাওয়া মিছিলে মজিদ ছিলেন অবিচল। শেষ উইকেট জুটিতে তিনি শহিদুলকে নিয়ে তোলেন ১২৪ রান। পূর্ণ করেন নিজের সেঞ্চুরি। শহিদুলও তুলে নেন তার প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি। ২৮২ রানের মাথায় শহিদুল ব্যক্তিগত ৫৮ রানে আউট হলেও আব্দুল মজিদ ছিলেন অপরাজিত। ৩২৫ মিনিট মাটি কামড়ে পড়ে থেকে, ২১৯টি বল মোকাবেলা করে, ১৩টি চার ও ৫টি ছক্কা হাঁকিয়ে ১৪১ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। তার ও শহিদুলের বীরত্বে ওয়ালটন পায় ২৮২ রানের লড়াকু সংগ্রহ।

বল হাতে প্রাইম ব্যাংকের আব্দুর রাজ্জাক ও আল-আমিন হোসেন ৩টি করে উইকেট নেন। ২টি উইকেট নেন রুবেল হোসেন। ১টি করে উইকেট নেন শফিউল ইসলাম ও মেহেদী হাসান।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com