জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
শিক্ষকদের আশায় শিক্ষার্থীরা

শিক্ষকদের আশায় শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

হবিগঞ্জের প্রতিটি উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকট রয়েছে। তাই নিয়মিত পাঠগ্রহণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। এতে শিশুদের ভবিষ্যত নিয়ে চিন্তিত অভিভাবকরা।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের তথ্যানুযায়ী, জেলায় ১ হাজার ৫২টি প্রাইমারি বিদ্যালয়ের শিক্ষকের পদ রয়েছে ৭ হাজার ৭০ জন। এর মধ্যে শিক্ষকের শূন্য পদ রয়েছে সাড়ে ৪০০টি। এর মধ্যে ১৩০ প্রধান শিক্ষক, ৩২০ সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে।

শিক্ষার্থী ফাহিম আহমদ বলেন, শিক্ষক সংকটের কারণে পড়ালেখা সঠিকভাবে হচ্ছে না। প্রতিদিন সবগুলো ক্লাস ঠিক মত হয় না। তাই শিক্ষকদের আশায় থাকি। শিক্ষক আসলে সব ক্লাস নিতে পারবেন।

অভিভাবক মায়েল আহমেদ বলেন, জেলার অধিকাংশ স্কুলেই শিক্ষক সংকট রয়েছে। তাই শিক্ষার্থীরা ভাল করে পাঠগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছে না। তাই অচিরেই শূন্য পদগুলোতে শিক্ষক নিয়োগের দাবি করছি।

সহকারী শিক্ষিকা লুনা আক্তার বলেন, বিদ্যালয়ে শিক্ষকের বিপরীতে অনেক শিক্ষার্থী রয়েছে। তাই প্রতিদিনি তাদের সবগুলো ক্লাস নিতে হিমশিম খেতে হয়। তাই দ্রুত শিক্ষক সংকটের সমাধান চাই।

হবিগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জেবুনেচ্ছা জেবু বলেন, বিদ্যালয়ে ১১টি পদের মধ্যে কর্মরত আছেন আটজন। শিক্ষক সংকটের কারণে পাঠদানসহ নানা সমস্যা হচ্ছে। তাই শূন্য পদগুলোতে দ্রুত শিক্ষক নিয়োগ দেয়া উচিত। এতে শিক্ষার্থীরা আরো ভাল করে লেখাপড়া করতে পারবে।

হবিগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুর রাজ্জাক বলেন, প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষকসহ প্রাইমারি বিদ্যালয়ের শূন্য পদগুলো পুরণের জন্য মন্ত্রণালয়ে একটি পত্র পাঠানো হয়েছে। শিগগিরই শূন্য পদগুলো পুরণ হবে। এতে শিক্ষার্থীদের পাঠদান আরো বেগবান হবে।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com