জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
রংপুরের বিনোদন কেন্দ্রে উপচে পড়া ভিড়

রংপুরের বিনোদন কেন্দ্রে উপচে পড়া ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঈদের পরদিনেই রংপুরের বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ছিলো উপচে পড়া ভিড়। জেলার বিভিন্ন এলাকা ছাড়াও আশ পাশের জেলা থেকে ছুটে আসছেন বিনোদন প্রেমীরা। তাদের আগমণে যেনো অজানা এক উৎসবের নগরীতে পরিণত হয়েছে রংপুর।
নগরীর চিড়িয়াখানা, শিশুপার্ক, সিটি চিকলী পার্ক, সুরভী উদ্যান, নিসবেতগঞ্জ সেনা কুঞ্জ, তাজহাট বাজবাড়ি, ভিন্নজগত, খেয়া পার্কসহ ছোট-বড় প্রত্যেকটি বিনোদন কেন্দ্রে ভিড় করছেন দর্শনার্থীরা। কেউ এসেছেন একাএকা কেউবা এসেছেন পরিবার পরিজন নিয়ে। এদিকে ঈদকে ঘিরে নগরীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে জেলা প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার সকাল বিকেল পর্যন্ত দেখা গেছে, ছোটোদের দখলে ছিলো শিশু পার্ক। বিভিন্ন রাইডে চড়া শিশুদের ছিলো বাঁধ ভাঙা উচ্ছাস। নগরীর শালবন এলাকা থেকে আসা সাদ্দাম হোসেন ও একই এলাকার মেহেমুদ হানান বলেন, ছেলে-মেয়ের আবদার মেটাতে এখানে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে আসা। চিড়িয়াখানা আর শিশু পার্ক আগের মতই আছে। তেমন কোনো পরিবর্তন নেই। সরকারের উচিৎ এর দিকে নজর দেয়া। চিড়িয়া খানায় বানরের খাঁচার সামনে সবচেয়ে বেশি মানুষের ভিড়। সবাই বানরের খাঁচার সামনে সেলফি ও ভিডিও করছিলো।

নগরীর মিস্ত্রিপাড়া এলাকার এলাকার গৃহবধু সম্পা হোসেন বলেন, মজার ও আকর্ষণীয় ছিলো হরিণের ঘোরাফেরা। রংপুর চিড়িয়াখানায় আরো প্রাণী দরকার। শুরু থেকে যা ছিল তাই আছে। দুই একটি প্রাণী বদল হয়েছে।

তাজহাট রাজবাড়িতে দর্শনার্থীদের ভিড় করতে দেখা গেছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরুণীদের আনাগোনা। রোদ বৃষ্টির ঝামেলা এড়িয়ে বিনোদন নিতে সিনেমা হলগুলোতেও বিনোদন প্রেমীদের ভিড় ছিলো উপচে পড়া। বন্ধু ও স্বজনদের নিয়ে পছন্দের ছবি দেখতে সিনেমা হলগুলোতে ছুটে যান অনেকে।

নগরীর সেনাকল্যাণ পার্ক প্রয়াস-এ দেখা গেছে, ক্লান্ত বিনোদন প্রেমীরা গাছের ছায়ায় বসে পড়েছেন। অনেকে আবার ঘাঘট নদের পাড়ে দল বেধে ঘুরছেন। ঈদের ছুটিতে ঢাকা থেকে আসা নগরীর কামালকাছ এলাকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী রাহী বিনতে তুবা বলেন, নগরীর এতো কাছাকাছি সুন্দর পরিবেশে এসে মন ভরে গেছে। সুশৃঙ্খল পরিবেশে ভালই লাগছে।

রংপুর মহানগর থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে বিনোদন কেন্দ্র ‘ভিন্নজগত’। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এখানে ভিড় লেগেই থাকে। ভিন্নজগতের ভেতরে আরেকটি ভিন্নজগত রয়েছে, এটি সবাইকে কাছে টানে বারবার। যা না দেখলে বিশ্বাসই করতে পারবেন না। সবুজের সমারোহে ঘেরা এ বিনোদন স্পটটি সব সময়ই মানুষের ভিড়ে মুখরিত থাকে। তবে ঈদ এলে এই মুখরিত কলরব আরো দীর্ঘ হয়। এখানে রয়েছে সৌরজগৎকে জানতে প্ল্যানেটরিয়াম। আজব গুহা ছাড়াও রয়েছে তাজমহল, মস্কোর ঘণ্টা, আইফেল টাওয়ার, চীনের প্রাচীর। চলছে ট্রেন, উড়তে চাইছে উড়োজাহাজ।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com