জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
রোহিঙ্গাদের ফেরাতে সৌদির কূটনীতিকদের সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে সৌদির কূটনীতিকদের সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ

যুগ-যুগান্তর
ছবি: সংগৃহীত

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য রিয়াদে কূটনীতিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ। এসময় রিয়াদে নিয়োজিত বিভিন্ন দেশের প্রায় ৬০ জন রাষ্ট্রদূত উপস্থিত ছিলেন।
গতকাল মঙ্গলবার রিয়াদের বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে স্থানীয় রেডিসন হোটেলে এক ব্রিফিংয়ে রাষ্ট্রদূত এ আহ্বান জানান।

বুধবার রিয়াদের বাংলাদেশ দূতাবাস এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ বলেন, বাংলাদেশ প্রায় ১২ লাখ রোহিঙ্গা নাগরিককে আশ্রয় দিয়েছে, কক্সবাজারের বিশাল এলাকায় তাদের জন্য শেল্টার ও তিনবেলা খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবিকতা প্রদর্শন করে তাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দিয়েছেন। কিন্তু বাংলাদেশের মতো একটি জনবহুল দেশে ১২ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়া ও খাবারসহ অন্যান্য সাহায্য-সহযোগিতা বিরাট চ্যালেঞ্জের বিষয়।

তিনি জানান, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চুক্তির পরও মিয়ানমারের গড়িমসির কারণে এখন এ গোষ্ঠীকে তাদের নিজভূমিতে পাঠানো সম্ভব হচ্ছে না।

রাষ্ট্রদূত বলেন, রোহিঙ্গাদের সমস্যা নিয়ে এরই মধ্যে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ও মানবাধিকার বিষয়ক কমিশনে রেজুলেশন গ্রহণ করা হয়েছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদেও বিষয়টি অনেকবার আলোচিত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি ওআইসির শীর্ষ সম্মেলনে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৫ দফা প্রস্তাব বাস্তবায়নে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান গোলাম মসিহ।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে বাংলাদেশ অসহযোগিতা করছে বলে মিয়ানমার অপপ্রচার চালাচ্ছে যা কোনোভাবেই সঠিক নয়।

রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ অবিলম্বে রোহিঙ্গা নাগরিকদের স্বদেশে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান। এ ব্যাপারে কূটনীতিকদের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি এ বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতার জন্য সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের প্রতিও আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার হয়ে দুই বছর আগে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। আগে থেকে এখানে রয়েছে আরো চার লাখের মতো রোহিঙ্গা।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক আবাসিক প্রতিনিধি খালেদ খলিফা। তিনি বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের দ্রুত মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে উপস্থিত রাষ্ট্রদূতরা বাংলাদেশের উদ্যোগের বিষয়ে স্বাগত জানান। এ বিষয়ে সহযোগিতারও আশ্বাস দেন।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com