জরুরি নোটিশ:
যুগযুগান্তর পত্রিকার জন্য সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় সংবাদ দাতা আবশ্যক।  মোবা: 01842268378 ইমেইল: nskibria2012@gmail.com
দলীয় প্রোফাইল: অস্ট্রেলিয়া

দলীয় প্রোফাইল: অস্ট্রেলিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক

৫ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। গত ১ বছর খারাপ সময় গেলেও বিশ্বকাপের ঠিক আগে দারুণভাবে ছন্দে ফিরেছে দলটি। বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরের অন্যতম ফেভারিট বলা হচ্ছে অজিদেরকে। বিশ্বকাপ জেতার লক্ষ্যে ভারসাম্যপূর্ণ একটি দল গঠন করেছে তারা। নিজেদের ৬ষ্ঠ শিরোপা ঘরে তোলার মিশনে ১ জুন আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করে টিম অস্ট্রেলিয়া।

শুরু থেকে সবকটি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেছে ক্যাঙ্গারুরা। মোট ৮৪টি ম্যাচ খেলে ৬২টিতেই জয় ও মাত্র ২০টিতে হার বুঝিয়ে দেয় তাদের শক্তিমত্তা। বিশ্বকাপের ১১টি শিরোপার ৫টি উঠেছে তাদের হাতে, এ থেকে বিশ্বকাপকে অস্ট্রেলিয়ার সম্পত্তি বলেও মজা করেন অনেকে।

গত বছর কেপটাউনে বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিতে স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে হারানোর পর অনেক দুর্বল হয়ে পড়ে অজিরা। তবে ফিঞ্চের নেতৃত্বে এই বছরের শুরুতেই দারুণভাবে ফিরে আসে তারা। এই দুই তারকাকে ছাড়াই ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ জিতে অজিরা।

অস্ট্রেলিয়ার মূল শক্তি ব্যাটিং। স্মিথ ও ওয়ার্নার দলে যোগ দেয়ায় অজিদের ব্যাটিং লাইনআপ আরো শক্ত হয়েছে।  সেই সঙ্গে আছেন এই বছরের অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক উসমান খাজা। ওয়ার্নার ও স্মিথ ব্যাট হাতে দারুণ সময় কাটিয়ে এসেছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল)। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচেও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এক দুর্দান্ত শতক তুলে নিয়েছেন স্মিথ।

ঝড়ো গতিতে রান তোলা ও কার্যকরী অফস্পিন বোলিংয়ের দক্ষতা রয়েছে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের। বিশ্বকাপ জুড়েই নজর থাকবে তার ওপর। এছাড়া পেস অলরাউন্ডার মার্কাস স্টইনিসও আছেন। দলে একমাত্র উইকেটরক্ষক হিসেবে ডাক পাওয়া অ্যালেক্স ক্যারিও প্রয়োজনে ঝড়ো ইনিংস খেলতে পারেন।

অজিদের বোলিং আক্রমণের নেতৃত্বে থাকবেন প্যাট কামিন্স ও গত বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি মিচেল স্টার্ক। এছাড়া রয়েছেন নাথান কোল্টার-নাইল, জেসন বেহেনডর্ফ ও কেন রিচার্ডসনের মতো প্রতিভাবান পেসাররা । দলটির বোলিং আক্রমণকে আরও শক্তিশালী করে তুলেছে লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা ও অফ স্পিনার নাথান লায়ন।

অস্ট্রেলিয়াকে বলা হয় গ্রেটদের ভান্ডার। এর আগে অসংখ্য তারকা এই দলের হয়ে বিশ্বকাপ মাতিয়েছেন । রিকি পন্টিং, মাইকেল ক্লার্কদের কে না চেনে। এছাড়া বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী গ্লেন ম্যাকগ্রা সহ ব্রেট লি, মিচেল জনসন কে খেলেনি তাদের হয়ে।

ডেনিস লিলি, ডেভিড বুন, ম্যাথু হেইডেন, অ্যাডাম গিলক্রিস্ট সহ সব গ্রেটদের নাম লিখতে গেলে আলাদা একটি বই বের হয়ে যাবে।

এবার অস্ট্রেলিয়ার হয়ে বিশ্বকাপ মাতাবেন যারা : 

অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), স্টিভ স্মিথ, উসমান খাজা, ডেভিড ওয়ার্নার, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যালেক্স ক্যারি, প্যাট কামিন্স, মার্কাস স্টইনিস, অ্যাডাম জাম্পা, মিচেল স্টার্ক, নাথান কোল্টার-নাইল, জেসন বেহেনডর্ফ, কেন রিচার্ডসন, নাথান লায়নবিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচের সময়সূচি:

১ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম আফগানিস্তান- সন্ধ্যা ৬:৩০ মিনিট।
৬ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম উইন্ডিজ- বেলা ৩:৩০।
৯ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম ভারত- বেলা ৩:৩০।
১২ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম পাকিস্তান- বেলা ৩:৩০।
১৫ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম শ্রীলঙ্কা- বেলা ৩:৩০।
২০ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম বাংলাদেশ- বেলা ৩:৩০।
২৫ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম ইংল্যান্ড- বেলা ৩:৩০।
২৯ জুন- অস্ট্রেলিয়া বনাম নিউজিল্যান্ড- সন্ধ্যা ৬:৩০ মিনিট।
৬ জুলাই- অস্ট্রেলিয়া বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা- সন্ধ্যা ৬:৩০ মিনিট।

যুগযুগান্তর পত্রিকা. নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Jugjugantor24.com  
Design & Developed BY ThemesBazar.Com